শ্যামলীতে শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

প্রকাশ: ০৪ ডিসেম্বর ২০১৯     আপডেট: ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯   

সমকাল প্রতিবেদক

রাজধানীর শ্যামলী এলাকার একটি বাসা থেকে সাইফুল ইসলাম (২৪) নামে এক যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার বিকেলে মাফলার দিয়ে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় তাকে পাওয়া যায়। তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন তদন্ত-সংশ্লিষ্টরা। সাইফুল একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

শেরেবাংলা নগর থানার ওসি জানে আলম মুন্সী সমকালকে বলেন, খবর পেয়ে সন্ধ্যায় পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠায়। ময়নাতদন্তে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। তবে মৃতদেহের সঙ্গে একটি চিরকুট পাওয়া গেছে। সেখানে তার হতাশার কথা ফুটে উঠেছে। তিনি বাবা-মায়ের উদ্দেশে লিখেছেন, 'ছোটবেলা থেকে তোমাদের দুঃখ-দুর্দশা দেখে আসছি। কিন্তু আমি তোমাদের জন্য কিছুই করতে পারলাম না। আমাকে তোমরা ক্ষমা করে দিও।'

পুলিশ সূত্র জানায়, শ্যামলীর দুই নম্বর সড়কের একটি বাসার নিচতলার মেসে থাকতেন সাইফুল ইসলাম। তিনি সোনারগাঁও বিশ্ববিদ্যালয়ে এলএলবি পড়তেন। বুধবার বিকেলে তার রুমমেট ঘরে ঢুকতে গিয়ে দরজা বন্ধ পান। অনেকক্ষণ ডাকাডাকি করেও সাড়া না পেয়ে তার সন্দেহ হয়। পরে তিনি বিষয়টি পুলিশকে জানান। পুলিশ গিয়ে ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় তাকে দেখতে পায়। এ সময় তার দুই কানে ইয়ারফোন গোঁজা ছিল। আর ইয়ারফোনের সঙ্গে যুক্ত মোবাইল ফোনটি ছিল তার পকেটে। ধারণা করা হচ্ছে, কারও সঙ্গে কথা বলতে বলতেই তিনি আত্মহত্যার পথ বেছে নেন। শেষ মুহূর্তে তিনি কার সঙ্গে কথা বলেছিলেন তা জানার চেষ্টা চলছে। তার স্বজনদের খবর পাঠানো হয়েছে। তারা এলে আরও বিস্তারিত তথ্য জানা যাবে। তার মৃত্যুর পেছনে অন্য কোনো কারণ আছে কি-না তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ব্যাপারে তার রুমমেটসহ কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।