ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায় গাজর

প্রকাশ: ২২ জুলাই ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

সুস্থ সজীব ত্বক কার না ভাল লাগে? এটা করার জন্য অনেকেই বিভিন্ন প্রসাধনী ব্যবহার করেন কিংবা  চিকিৎসকের কাছে ছোটেন। তারপরও ত্বকের সজীবতা বজায় রাখা কঠিন হযে পড়ে। বিশেষজ্ঞদের মতে, ত্বকের উজ্জ্বলতা কিংবা সজীবতা বাড়াতে বাজারের প্রসাধনীর প্রয়োজন নেই। চাইলে প্রাকৃতিক উপাদান দিয়েই ত্বকের সজীবতা বজায় রাখতে পারেন। সেক্ষেত্রে গাজর দারুণ ভূমিকা রাখতে পারে। 

অনেকেই জানেন, শরীরের সুস্থতা, চোখ এবং চুলের স্বাস্থ্য রক্ষায় গাজর যথেষ্ট উপকারী। তবে ত্বকের সুস্থতা রক্ষাতেইও গাজরের তুলনা নেই। গাজরের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম থাকায় এটি ত্বকের ভিতরে পৌঁছে ময়েশ্চারাইজেশরেনর জোগান দেয়। ফলে ত্বক চকচকে দেখায়।ত্বকের সজীবতা বাড়াতে বাড়িতেই তৈরি করতে পারেন গাজরের ফেসপ্যাক। যেমন- 

শুষ্ক ত্বকের জন্য : একটি গাজরের অর্ধেক  ব্লেন্ডারে পেস্ট করে নিন। এবার এর মধ্যে এক চামচ মধু ও এক চামচ দুধ মিশিয়ে মুখে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। তারপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। 

তৈলাক্ত ত্বকের জন্য : ১ টেবিল চামচ দই, বেসন এবং কয়েক ফোঁটা লেবুর রসের সঙ্গে গাজরের পেস্ট মিশিয়ে তা মুখে মেখে রাখুন। ১ ঘন্টা পরে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। 

ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে : গাজরের রসের সঙ্গে দই এবং ডিমের সাদা অংশ মিশিয়ে ১৫ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখুন। তারপর হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি নতুন কোষ গঠনে সাহায্য করবে।

সূর্য রশ্মি থেকে বাঁচতে : গাজরের মধ্যে থাকা বিটা ক্যারোটিন এবং ক্যারোটিনয়েডস সূর্যের ক্ষতিকারক রশ্মি থেকে ত্বককে বাঁচাতে পারে।  সেই সঙ্গে ত্বকের পোড়াভাবও দূর করতে পারে। এজন্য গাজরের রসের সঙ্গে সমপরিমাণ গোলাপ জল মিশিয়ে একটি স্প্রে বোতলে ভরে রাখুন। রোদে বের হলে মাঝেমধ্যে মুখে তা স্প্রে করে নিন।

অ্যান্টি এজিং : অ্যালোভেরার সঙ্গে গাজরের রস মিশিয়ে মাখলে নতুন কোলাজেন তৈরি হবে। এই মিশ্রণটি ত্বকের বলিরেখা দূর করে বয়স ধরে রাখতে সাহায্য করবে। সূত্র : এনডিটিভি