সৌন্দর্যবর্ধনের জন্য চার বছর আগে গাছের গোড়ার চারপাশে দেওয়া হয়েছিল ইট-বালুর প্রাচীর। শরীরচর্চা ও প্রাতঃভ্রমণকারীদের উদ্যোগে তিন ফুট উঁচু প্রাচীর করে ওপরের অংশে টাইলস দিয়ে পুরোপুরি ঢেকে দেওয়া হয়েছিল গোড়ার অংশ। এতে মাটি শুস্ক হয়ে পড়ায় ধীরে ধীরে মারা যায় আনুমানিক ৮০ বছর বয়সী বিশাল রেইনট্রি গাছটি।

বরিশাল নগরের ঐতিহ্যবাহী বঙ্গবন্ধু উদ্যানের এ গাছটির এমন মৃত্যুর জন্য দায়ীদের নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলছে ব্যাপক সমালোচনা। মৃত গাছটি নিলামে বিক্রি করেছে জেলা প্রশাসন। শুরু হয়েছে এর অপসারণ কাজ।

বন বিভাগের বরিশালের রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. আবদুস সালাম বলেন, দুটি কারণে গাছটির মৃত্যু ঘটতে পারে। এর একটি বয়স এবং অন্যটি তিন ফুট উঁচু প্রাচীর করে গাছের গোড়া ঢেকে দেওয়ায়। তার ধারণা, সিমেন্ট ও টাইলস দিয়ে আটকে দেওয়ায় মাটি শুস্ক হয়ে যায়। ফলে খাবারের অভাব পড়েছিল গাছটি।

রেইনট্রি গাছ বিক্রয় দরপত্র কমিটির আহ্বায়ক বরিশাল সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তারিকুল ইসলাম বলেন, গাছটি প্রায় এক বছর আগে মারা গেছে। এর ডালপালা ভেঙে পড়ায় সেখানে আসা বিনোদনপিপাসু এবং সংলগ্ন সরকারি মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা ঝুঁকির মধ্যে ছিল।