পর্দা উঠল বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) ক্রিকেটের অষ্টম আসরের। উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি ফরচুন বরিশাল ও চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। টস জিতে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ফরচুন বরিশালের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। শুরুতে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের সংগ্রহ ১২৫ রান। জিততে হলে সাকিবের বরিশালের লক্ষ্য ১২৬ রান।

ইনিংসের প্রথম বলেই নাঈম ইসলামকে বিশাল ছয় মারেন লুইস। তৃতীয় বলেই তাকে থামিয়ে দেন নাঈম। ৬ রানেই থামে লুইসের ইনিংস। নাঈমের পর দলকে সাফল্য এনে দেন আলজারি জোসেফ। ৬ রান করে আফিফ হোসেন ধ্রুব শিকার হন জোসেফের। ২২ রানে ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় চট্টগ্রাম।

এরপর ইনিংসের হাল ধরেন উইল জ্যাকস। কিন্তু সেও থিতু হতে পারেননি। দলীয় স্কোর অর্ধশতকে পৌছতেই ৯ রান করে ফেরেন মিরাজ। সুবিধা করতে পারেননি শামীম হোসেন পাটোয়ারিও। ২৩ বলে ১৪ রান করে ষষ্ঠ ব্যাটার হিসেবে সাজঘরে ফেরেন তিনি। এরপর ক্রিজে নেমে দলের হাল ধরেন বেনি হাওয়েল। ইংলিশ অলরাউন্ডারের মারকুটে ব্যাটিং দলকে এনে দেয় সম্মানজনক পুঁজি।

শেষ ওভারের ৫ম বলে ডোয়াইন ব্রাভোর বলে আউট হওয়ার আগে ২০ বলে ৪১ রান করেন হাওয়েল। হাঁকান ৩টি করে চার-ছক্কা। ইনিংসের শেষ বলে চার হাঁকান ক্রিজে নামা শরীফুল ইসলাম। নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে চট্টগ্রামের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১২৫ রান।

বরিশালের পক্ষে আলজারি জোসেফ ৩২ রানের খরচায় তিনটি উইকেট শিকার করেন। ২৫ রানের খরচায় ২ উইকেট শিকার করেন নাঈম হাসান। বল হাতে দারুণ আঁটসাঁট সাকিব ৪ ওভারে ১ উইকেট শিকার করেছেন মাত্র ৯ রান দিয়ে। ইংলিশ লেগ স্পিনার জ্যাক লিনটট ১৮ রানের খরচায় একটি উইকেট শিকার করেন।

ফরচুন বরিশাল: 

সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), নাজমুল হোসেন শান্ত, সৈকত আলী, তৌহিদ হৃদয়, ইরফান শুক্কুর (উইকেটরক্ষক), ডোয়াইন ব্রাভো, জিয়াউর রহমান, আলজারি জোসেফ, জ্যাকব লিন্টট, নাঈম হাসান, সালমান হোসেন।

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স: 

কেনার লুইস, শামিম হোসেন, সাব্বির রহমান, আফিফ হোসেন, বেনি হাওয়েল, মেহেদী হাসান মিরাজ (অধিনায়ক), নাঈম ইসলাম, উইল জ্যাকস, শরিফুল ইসলাম, মুকিদুল ইসলাম, নাসুম আহমেদ।