উসকানিমূলক ওয়াজ ঠেকাতে পদক্ষেপ নেওয়ার সুপারিশ

প্রকাশ: ০৫ জানুয়ারি ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

ধর্মীয় ওয়াজ মাহফিলে উসকানিমূলক বক্তব্য ঠেকাতে ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি। এ জন্য যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ জানিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে চিঠি পাঠাতে বলেছেন তারা।

রোববার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত কমিটির সভায় এ সুপারিশ করা হয়।

ধর্ম মন্ত্রণালয়-সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি রুহুল আমীন মাদানীর সভাপতিত্বে বৈঠকে অংশ নেন কমিটির সদস্য মনোরঞ্জন শীল, জিন্নাতুল বাকিয়া, তাহমিনা বেগম ও রত্না আহমেদ। বৈঠকে উপস্থিত একাধিক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, বৈঠকে মনোরঞ্জন শীল এ বিষয়ে আলোচনার সূত্রপাত ঘটান। তার নির্বাচনী এলাকার উদাহরণ তুলে ধরে তিনি বলেন, কোনো কোনো ওয়াজ মাহফিলে সাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলক বক্তব্য দেওয়া হয়। কমিটির অন্য সদস্যরাও এ বিষয়ে একমত প্রকাশ করেন।

আরেক সদস্য বলেন, ওয়াজ মাহফিলে রাজনৈতিক বক্তব্য দেওয়ার পাশাপাশি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট হয়- এমন উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়া হচ্ছে। আলোচনা শেষে কমিটি এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে চিঠি দেওয়ার জন্য ধর্ম মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে।

বৈঠক শেষে সংসদ সচিবালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দেশের সব সংসদীয় আসনের মসজিদ সংস্কারের জন্য বছরে ১০ লাখ টাকা, মাদ্রাসার জন্য পাঁচ লাখ এবং মন্দিরের জন্য পাঁচ লাখ টাকা বরাদ্দ রাখার সুপারিশ করা হয়েছে।

এ ছাড়াও এ বছরের হজ কার্যক্রম পরিচালনার জন্য হজ ক্যালেন্ডার প্রণয়নের কথা বৈঠকে জানানো হয়। বলা হয়, সৌদি আরব ও বাংলাদেশ সরকারের দ্বিপক্ষীয় চুক্তি অনুযায়ী এ বছর সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় এক লাখ ৩৭ হাজার ১৯৮ যাত্রী হজে অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবেন। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১৭ হাজার ১৯৮ এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় এক লাখ ২০ হাজার জন হজ পালনের সুযোগ পাবেন।

কমিটি হজযাত্রীদের আরও উন্নত চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে হজ মেডিকেল টিমে সহায়ক হিসেবে মেডিকেল ডিপ্লোমা সার্টিফিকেটধারীদের অগ্রাধিকার দেওয়ার সুপারিশ করেছে।