আবরার হত্যা: পলাতক চারজনের বিরুদ্ধে পরোয়ানা

প্রকাশ: ১৮ নভেম্বর ২০১৯   

সমকাল প্রতিবেদক

আবরার ফাহাদ- ফাইল ছবি

আবরার ফাহাদ- ফাইল ছবি

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় ২৫ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছেন আদালত। ঢাকা মহানগর হাকিম কায়সারুল ইসলামের আদালতে সোমবার এ অভিযোগপত্র গ্রহণ করে শুনানির জন্য আগামী ৩ ডিসেম্বর দিন ধার্য করেছেন। এ ছাড়া পলাতক চার আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। চার আসামি হলেন- মুজতবা রাফিদ, মোরশেদ অমর্ত্য, মাহমুদুল জিসান ও এহতেশামুল রাব্বি। এদিন কারাগারে থাকা বুয়েটের বাকি ২১ আসামিকে আদালতে হাজির করে পুলিশ।

গত ১৩ নভেম্বর ২৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয় গোয়েন্দা পুলিশ। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক মো. ওয়াহিদুজ্জামান ঘটনার ৩৭ দিনের মাথায় আদালতের সংশ্লিষ্ট জিআর শাখায় অভিযোগপত্র জমা দেন। অভিযোগপত্রভুক্ত ২৫ আসামির মধ্যে ২১ জনকে ইতিমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে। ২১ জনের মধ্যে ১৬ জনের নাম হত্যা মামলার এজাহারে রয়েছে।

অভিযুক্তদের বহিস্কারের দুই সপ্তাহ সময় চেয়েছে বুয়েট প্রশাসন : আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের চার্জশিটভুক্ত আসামিদের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ী বহিষ্কারসহ শিক্ষার্থীদের তিন দফা দাবি পূরণে দুই সপ্তাহ সময় চেয়েছে বুয়েট প্রশাসন। সোমবার দুপুরে উপাচার্য অধ্যাপক ড. সাইফুল ইসলামের সঙ্গে আলোচনা শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষার্থীরা এ তথ্য জানান।

বুয়েটের আরবান এন্ড রিজিউনাল বিভাগের শিক্ষার্থী শীর্ষ সংশপ্তক বলেন, 'আমরা প্রশাসনের দেওয়া প্রস্তাব মেনে নিয়েছি। যদি দুই সপ্তাহের মধ্যে দাবিগুলো পূরণ হয়, তাহলে আমরা আসন্ন টার্ম পরীক্ষা দেব।'

এর আগে ১৪ নভেম্বর সংবাদ সম্মেলনে তিনটি দাবি পূরণের শর্তে পরীক্ষা দেওয়ার কথা জানিয়েছিলেন শিক্ষার্থীরা। তাদের দাবিগুলো হলো-চার্শশিটভুক্ত আসামিদের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ী বহিষ্কার, আহসানুল্লাহ, তিতুমীর ও সোহরাওয়ার্দী হলের র‌্যাগের ঘটনায় অভিযুক্তদের শাস্তি প্রদান এবং সাংগঠিক ছাত্ররাজনীতি ও র‌্যাগের বিষয়ে নীতিমালা প্রণয়ন ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্ডিনেন্সে তা যুক্ত করা।

তৃতীয় পক্ষের ইন্ধনে বুয়েট আন্দোলন : শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেছেন, তৃতীয় পক্ষের ইন্ধনে বুয়েট নিয়ে নোংরা রাজনীতি হচ্ছে। বুয়েটে শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার আসামীদের গ্রেফতার করা হয়েছে। চার্জশীট দেওয়া হয়েছে। যারা পালিয়ে বেড়াচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। তবুও কেন বহিষ্কার দাবিতে বুয়েট আন্দোলন? বিএনপিপন্থি একজন আইনজীবী তার সন্তানের মাধ্যমে বুয়েট অচলাবস্থার উস্কানি দিচ্ছেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

সোমবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে বুয়েটের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

গত ৬ অক্টোবর রাতে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে ডেকে নিয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বেধড়ক পিটিয়ে আবরার ফাহাদ নামের এক শিক্ষার্থীকে হত্যা করে। এ ঘটনার পর থেকেই সাধারণ শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে নামে। আবরার ফাহাদের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে ১৯ জনের বিরুদ্ধে চকবাজার থানায় মামলা করেন। গত বুধবার আদালতে এ মামলার অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়।