এমপি লিটন হত্যায় 'দোষ স্বীকার' কাদের খানের

প্রকাশ: ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭     আপডেট: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭      

গাইবান্ধা প্রতিনিধি

ফাইল ছবি

গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের সরকার দলীয় সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যা মামলায় গ্রেফতার ডা. আবদুল কাদের খান 'দোষ স্বীকার' করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।
 
গাইবান্ধার অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম জয়নাল আবেদিন শনিবার রাতে তার এ জবানবন্দি গ্রহণ করেন।
 
পুলিশের রংপুর রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি বশির আহমেদ জানান, দুপুর ২টা থেকে রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত ১৬৪ ধারায় দেওয়া জবানবন্দিতে আবদুল কাদের খান এমপি লিটন হত্যায় দোষ স্বীকার করেন।
 
বশির আহমেদ আরও জানান, সাবেক এমপি কাদের খান ক্ষমতার লোভে এমপি লিটনকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। এর আগে গত অক্টোবরে লিটনকে হত্যার পরিকল্পনা করেন তিনি। তবে সে চেষ্টা ব্যর্থ হয়।
 
তিনি জানান, আবদুল কাদের খান আদালতে এমপি লিটন হত্যার পরিকল্পনা, প্রশিক্ষণ ও বাস্তবায়ন সম্পর্কে বিস্তারিত বিবরণ দিয়েছেন। ১৫ দিনের মধ্যে এ মামলার অভিযোগপত্র আদালতে দাখিল করা হবে বলে জানান তিনি।
 
গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনে আওমী লীগের এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যা মামলায় জড়িত অভিযোগে গত ২১ ফেব্রুয়ারি আবদুল কাদের খানকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পর দুপুরে পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গাইবান্ধার অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম মইনুল হাসান ইউসুব তাকে ১০ দিনের রিমান্ডের আদেশ দেন।
 
কিন্তু রিমান্ড শেষ হওয়ার আগেই স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেওয়ায় শনিবার আদালত তাকে কারাগারে পাঠান।
 
এরআগে ১৬ ফেব্রুয়ারি রাত থেকে ডা. আবদুল কাদের খান বগুড়ায় তার ক্লিনিক-কাম বাসভবনে কার্যত 'গৃহবন্দি' ছিলেন।
 
জাতীয় পার্টির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান কাদের খান ২০০৮ সালে গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনে ওই দলের টিকিটে সাংসদ নির্বাচিত হয়েছিলেন।
 
২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নেতা মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় গাইবান্ধা-১ আসনের সাংসদ নির্বাচিত হন।
 
২০১৬ সালের ৩১ ডিসেম্বর মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন খুন হলে আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। এরই মধ্যে ওই আসনের উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। উপ নির্বাচনে ডা. আবদুল কাদের খান মনোনয়নপত্র জমার নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার একদিন আগে ১৮ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন।
 
প্রসঙ্গত, গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনে নির্বাচিত আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় সুন্দরগঞ্জের নিজ বাড়িতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে গুরুতর আহত হন। পরে তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে রাত সাড়ে ৭টায় কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।  এ ঘটনায় লিটনের বোন ফাহমিদা বুলবুল কাকলী বাদি হয়ে অজ্ঞাত ৪-৫ জনকে আসামি করে সুন্দরগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।
৭ জেলায় বিএনপি জামায়াতের ২০ জন গ্রেফতার

৭ জেলায় বিএনপি জামায়াতের ২০ জন গ্রেফতার

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে এবং পুলিশের বিশেষ ...

মা-বাবাকে খুঁজছে পথ হারানো রবিউল

মা-বাবাকে খুঁজছে পথ হারানো রবিউল

পাবনার চাটমোহর রেল স্টেশনে কুড়িয়ে পাওয়া পথ হারানো শিশু রবিউল ...

ধুনটে বিএনপি প্রার্থীর গাড়ি বহরে হামলা

ধুনটে বিএনপি প্রার্থীর গাড়ি বহরে হামলা

বগুড়ার ধুনটে বিএনপি প্রার্থী গোলাম মো. সিরাজের গাড়ি বহরে হামলার ...

যুক্তরাষ্ট্র কোনও দল বা প্রার্থীকে সমর্থন করে না: মার্কিন রাষ্ট্রদূত

যুক্তরাষ্ট্র কোনও দল বা প্রার্থীকে সমর্থন করে না: মার্কিন রাষ্ট্রদূত

বাংলাদেশের নির্বাচনে যুক্তরাষ্ট্র কোনও রাজনৈতিক দল বা প্রার্থীকে সমর্থন করে ...

জঙ্গিবিরোধী চলচ্চিত্রের নায়ককে হত্যার পরিকল্পনায় দুইজন গ্রেফতার

জঙ্গিবিরোধী চলচ্চিত্রের নায়ককে হত্যার পরিকল্পনায় দুইজন গ্রেফতার

জঙ্গিবিরোধী চলচ্চিত্র নির্মাণ ও প্রচার করায় পরিচালক ও অভিনেতা খিজির ...

নোয়াখালীতে নির্বাচনী সংঘাতে যুবলীগ নেতা খুন

নোয়াখালীতে নির্বাচনী সংঘাতে যুবলীগ নেতা খুন

নোয়াখালীতে আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে সংঘাতে এক যুবলীগ ...

স্মিথের বিপিএল খেলা নিয়ে প্রশ্ন

স্মিথের বিপিএল খেলা নিয়ে প্রশ্ন

বিপিএলের আগামী আসরে বড় বড় কিছু নাম যোগ হয়েছে। গেইল-নারইনরা ...

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ত্রাণের চাল নিয়ে সংঘর্ষ, আটক ৬

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ত্রাণের চাল নিয়ে সংঘর্ষ, আটক ৬

কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে ত্রাণের চাল ক্রয়ের সিন্ডিকেটের সদস্যরা দিন ...