বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু মন্ত্রণালয় আয়োজিত  পরিবেশ মেলা এবং জাতীয় বৃক্ষরোপণ অভিযান ও বৃক্ষমেলার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

আগামী ৫ জুন নানা আয়োজনে সারাদেশে পালিত হবে বিশ্ব পরিবেশ দিবস। সেদিন সকালে মূল আয়োজনটি হবে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে। 

অনুষ্ঠানে গণভবন হতে ভার্চুয়ালি যুক্ত হবেন প্রধানমন্ত্রী। 

বৃহস্পতিবার তথ্য অধিদপ্তরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে পরিবেশমন্ত্রী শাহাব উদ্দিন এই তথ্য জানান। 

তিনি জানান, পরিবেশ মেলা ৫ জুন থেকে শুরু হয়ে চলবে ১১ জুন পর্যন্ত। জাতীয় বৃক্ষরোপণ অভিযান ও বৃক্ষমেলার প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে ‘বৃক্ষ -প্রাণে প্রকৃতি প্রতিবেশ, আগামী প্রজন্মের টেকসই বাংলাদেশ’।

দিবসটি উপলক্ষে ঢাকা মহানগরীর ১০০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পরিবেশ দিবসের নানা আয়োজন থাকছে। সব মোবাইল ফোন অপারেটরের মাধ্যমে পরিবেশ সচেতনতামূলক বার্তা পাঠানো হবে। পরিবেশ দিবস উপলক্ষে শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, বিতর্ক প্রতিযোগিতা, স্লোগান প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। 

এছাড়াও পরিবেশ বিষয়ক সেমিনার, রাউন্ড টেবিল আলোচনা, পরিবেশ সচেতনতামূলক কার্যক্রম, পরিবেশ অধিদপ্তর সম্পর্কিত বুকলেটের পরিমার্জিত সংস্করণ প্রণয়ন ও প্রকাশ, পরিবেশ দূষণকারী শিল্প প্রতিষ্ঠানের উদ্যোক্তাদের জন্য সচেতনতামূলক সেমিনার আয়োজন করা হয়েছে। 

সংবাদ সম্মেলনে শাহাব উদ্দিনের নির্বাচনী এলাকা মৌলভীবাজারের জুড়িতে লাঠিটিলা সাফারি পার্ক নিয়েও প্রশ্ন করেন গণমাধ্যমকর্মীরা।

এ সাফারি পার্কের বিরোধিতা করে পরিবেশবিদরা বলছেন, মৌলভীবাজারের জুড়ি উপজেলার লাঠিটিলা বনে যে সাফারি পার্কের প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে, তা বিপন্ন সিলেটের বনাঞ্চলের অস্তিত্ব বিলীন করবে। বন্যপ্রাণীরাও হারাবে বাসস্থান। 

এসব প্রশ্নের জবাবে শাহাব উদ্দিন বলেন, ‘অবৈধভাবে দখলকৃত বনভূমি রক্ষায় লাঠিটিলায় সাফারি পার্ক করা হচ্ছে।’

অন্য এক প্রশ্নের জবাবে পরিবেশমন্ত্রী বলেন, শিল্প-কারখানার বর্জ্য পরিশোধন কেন্দ্র বা ইফ্লুয়েন্ট ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট অনলাইন ব্যবস্থাপনার আওতায় আসছে। নতুন বিধিমালা তৈরি হচ্ছে।  

সংবাদ সম্মেলনে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. ফারহিনা আহমেদ, অতিরিক্ত সচিব ইকবাল আব্দুল্লাহ হারুন, অতিরিক্ত সচিব সঞ্জয় কুমার ভৌমিক, পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক  ড. আবদুল হামিদ, প্রধান বন সংরক্ষক আমীর হোসাইন চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।