'লেখালেখির মধ্য দিয়েই নিজেকে চিনতে শেখা'

২০ নভেম্বর ২০১৭

টিলডা সুইনটন। বরেণ্য অভিনেত্রী ও লেখক। ২০০৭ সালে 'মাইকেল ক্লেটন' ছবিতে অভিনয় করে সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রী হিসেবে অস্কার জেতেন। গত শুক্রবার ঢাকা লিট ফেস্টে 'পারফরম্যান্সেস অ্যান্ড অথরশিপ' সেশনে নিজের অভিনয় ও লেখালেখি নিয়ে কথা বলেন তিনি। প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ ভ্রমণ ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা বললেন সুইনটন-

আপনি একই সঙ্গে অভিনেত্রী, পরিচালক, লেখক ও শিল্পী। এর মধ্যে কোন পরিচয়ে সবচেয়ে বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন?

লেখক ও শিল্পী পরিচয়েই আমি পরিচিত, বাকি কাজগুলো আমার এ দুটি সত্তার ভিন্নতর প্রকাশ। কেউ যদি আমায় হলিউডের অভিনেত্রী হিসেবে ডাকে, নিজ থেকে খুব অবাক লাগে। কারণ লেখালেখি করতে গিয়েই নিজেকে বুঝতে ও চিনতে শিখেছি। তবে যেহেতু লেখালেখির সঙ্গে অনেক শিল্পমাধ্যম নিয়ে কাজ করি, তাই শিল্পী পরিচয়েও স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি।

আমাদের লেখকদের উদ্দেশে আপনার পরামর্শ কী?

একটা কথাই বলতে চাই, লেখালেখি যেন কখনও না ছাড়েন। ব্যক্তিগত ব্যস্ততায় প্রায় ১৫ বছর লেখালেখি থেকে দূরে ছিলাম। এখন মনে হয়, জীবন থেকে কত বড় সময় হারিয়েছি। এই ভুলটা যেন আর কেউ না করেন।

'ঢাকা লিট ফেস্ট'-এ অংশগ্রহণ করার অভিজ্ঞতা কেমন?

যদিও বাংলাদেশে প্রথম এসেছি, কিন্তু মনে হচ্ছে এ শহর আমার চেনা। অনেকের সঙ্গে এ উৎসবে এসে দেখা হয়ে গেল। বিভিন্ন দেশের সাহিত্যিকদের সঙ্গে কথা হলো। আমার ভাই স্কটিশ লেখক উইলিয়াম ডালরিম্পালও এ উৎসবে অতিথি হিসেবে এসেছেন। আবার ছোটবেলার বন্ধু ইস্থার ফ্রয়েডের সঙ্গেও দেখা হলো প্রায় ৩১ বছর পর। এত ভালো সময় কাটবে এখানে এসে, সত্যি ভাবিনি।

বাংলাদেশ সম্পর্কে আগে থেকে কিছু জানতেন?

আমার কাছে বাংলাদেশ এক স্মৃতিময় দেশ। আমার বাবার দাদা জর্জ সুইনটন ছিলেন ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির এক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা। ১৮৮৮ থেকে ১৮৯৪ সাল পর্যন্ত অবিভক্ত ভারতের গভর্নর জেনারেলের একান্ত সহকারী ছিলেন তিনি।

আপনার ড্রামডুয়ান স্কুলের কথা শুনেছি, স্কুলটি নিয়ে বলুন।

বিকল্প শিক্ষা পদ্ধতির অনুসরণে গল্পের মাধ্যমে এখানে শিক্ষা দেওয়া হয়। এর রুটিনে পরীক্ষা নেই, বেঞ্চ নেই, বই নেওয়ার ঝক্কি বা হোমওয়ার্ক নেই। বছর শেষে অভিজ্ঞতাগুলো জড়ো করে একটা বই লেখে।

© সমকাল 2005 - 2017

সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার । প্রকাশক : এ কে আজাদ

১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫, ৮৮৭০১৯৫, ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১, ৮৮৭৭০১৯৬, বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০ । ইমেইল: info@samakal.com