চবি শিক্ষক আনোয়ারের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা

প্রকাশ: ১৭ মে ২০১৮      

চবি প্রতিনিধি

সহকারী অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন -ফাইল ফটো

আন্তর্জাতিক জার্নালে প্রকাশিত গবেষণা প্রবন্ধে জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটুক্তি ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতির অভিযোগে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) সমাজতত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আনোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আসাদুজ্জামান তানভীর বাদি হয়ে চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম আবু সালেহ মো. নোমানের আদালতে এ মামলা দায়ের করেন । 

বাদির আইনজীবী ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী বলেন, আদালত মামলার আরজি গ্রহণ করে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৯৬ ধারা অনুযায়ী সরকারের অনুমতি নিয়ে এই মামলার এজাহার গ্রহণের জন্য চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছেন। 

আদালত মন্তব্য করেছেন, বাদির আরজিতে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে স্বাধীনতার স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বিরুদ্ধে কটূক্তি এবং মুক্তিযুদ্ধকে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা হিসেবে উল্লেখ করাসহ রাষ্ট্রদ্রোহের আলামত পাওয়া গেছে।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ‘রিলিজিয়াস পলিটিক্স অ্যান্ড কমিউনাল হারমনি ইন বাংলাদেশ: এ রিসেন্ট ইমপাস’ শিরোনামে আনোয়ার হোসেনের একটি প্রবন্ধ প্রকাশিত হয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ‘গ্লোবাল জার্নাল অব হিউম্যান সোশ্যাল সায়েন্স: সোসিওলজি এন্ড কালচার’ নামে এক জার্নালে। পরবর্তীতে গত ১৯ এপ্রিল সহযোগী অধ্যাপক পদে পদোন্নতির জন্য বিভাগের সভাপতি বরাবরে আবেদন করেন তিনি। এতে ওই প্রবন্ধটি তিনি সংযুক্ত করেন। 

আনোয়ার হোসেনের ওই প্রবন্ধের উপর করা একটি গণমাধ্যমের প্রতিবেদনের সূত্র ধরে দায়ের করা মামলায় বাদি অভিযোগ করেন, প্রকাশিত ওই গবেষণা প্রবন্ধে তিনি একাধিকবার শেখ মুজিবুর রহমানের নাম উল্লেখ করলেও জাতির জনক শব্দটি একবারও ব্যবহার করেননি বরং বিভিন্ন জায়গায় নামের বানান ভিন্ন ভিন্নভাবে উল্লেখ করেছেন। এত করে তার ধৃষ্ঠতা প্রকাশ পেয়েছে। পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধকে হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা বলে উল্লেখ করা হয়েছে ওই প্রবন্ধে। এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর সৌদিআরব গমন, জায়নামাজ বহন ও হিজাব পরিধান, চট্টগ্রামের হাটহাজারীর নন্দীরহাটে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বাড়িঘরে ও উপাসনালয়ে হামলা, রামু  বৌদ্ধবিহারে সহিংসতা, রাষ্ট্রধর্ম ইসলামসহ বিভিন্ন বিষয় উল্লেখ করে ধর্মীয় উসকানি দেওয়ার চেষ্টার অভিযোগও আনা হয়েছে শিক্ষক আনোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে। তার বিরুদ্ধে দন্ডবিধির ১২৩ (ক), ১২৪ (ক), ১৭৭, ৫০০, ৫০১ ও ৫০২ ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে।

উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা দিয়াজ ইরফান হত্যা মামলার অন্যতম আসামি সাবেক এই সহকারী প্রক্টর আনোয়ার হোসেন।  গত বছরের ১৮ ডিসেম্বর আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন তিনি। গত ১১ ফেব্রুয়ারি তাকে সাময়িক বহিষ্কারও করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। সম্প্রতি আদালতের নির্দেশে কারামুক্তি পেয়ে আবারও শিক্ষকতায় ফিরেছেন।

আরও পড়ুন

 ফিলিপাইন নয়, অভিযান বাংলাদেশ মডেলে

ফিলিপাইন নয়, অভিযান বাংলাদেশ মডেলে

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ফিলিপাইন বা অন্য কোনো দেশের ...

 স্বল্প সময়ে নানা জরুরি প্রসঙ্গে আলোচনা হবে

স্বল্প সময়ে নানা জরুরি প্রসঙ্গে আলোচনা হবে

শান্তিনিকেতনে আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ...

 ১৯৮ ভবনের দিকে অভিযোগের তীর

১৯৮ ভবনের দিকে অভিযোগের তীর

গুলিস্তানের ফুলবাড়িয়ায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) সুন্দরবন স্কয়ার মার্কেটের ...

নজরুল জয়ন্তী আজ

নজরুল জয়ন্তী আজ

বাংলা সাহিত্যাকাশে তার আবির্ভাবকে বলা যায় অগ্নিবীণা হাতে ধূমকেতুর মতো ...

সিটি ভোটের প্রচারে নামছেন এমপিরা

সিটি ভোটের প্রচারে নামছেন এমপিরা

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রস্তাবে সায় দিয়ে সিটি করপোরেশন নির্বাচনের আচরণবিধি ...

আগারগাঁওয়ে পাসপোর্ট করতে এসে দালালসহ ধরা রোহিঙ্গা নারী

আগারগাঁওয়ে পাসপোর্ট করতে এসে দালালসহ ধরা রোহিঙ্গা নারী

পাসপোর্ট করার জন্য রাজধানীর আগারগাঁও পাসপোর্ট অফিসে এসে দালালসহ ধরা ...

খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের আদেশ রোববার

খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের আদেশ রোববার

কুমিল্লার এক হত্যা মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার হাইকোর্টে জামিন ...

রোহিঙ্গা শিশুদের নিজের সন্তানের মতো দেখুন: প্রিয়াঙ্কা

রোহিঙ্গা শিশুদের নিজের সন্তানের মতো দেখুন: প্রিয়াঙ্কা

কক্সবাজারের শরণার্থী ক্যাম্পগুলোতে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গা নারী ও শিশুদের সব ...